Skip to main content

Omicorn medicine found : All Details

  Omicorn medicine found : All Details   As the world worries that the omicron coronavirus variant may cause a surge of cases and weaken vaccines, drug developers have some encouraging news: Two new COVID-19 pills are coming soon, and are expected to work against all versions of the virus. Omicorn medicine found : All Details   Omicorn medicine found : All Details The Food and Drug Administration is expected to soon authorize a pill made by Merck and Ridgeback Biotherapeutics, called molnupiravir, which reduces the risk of hospitalization and death from COVID-19 by 30% if taken within five days of the onset of symptoms.   Another antiviral pill, developed by Pfizer, may perform even better. An interim analysis showed that the drug was 85% effective when taken within five days of the start of symptoms. The FDA could authorize it by year’s end.   Since the start of the pandemic, scientists have hoped for convenient options like these: pills that could be prescribed by

সালমান শাহ বাংলাদেশ । সালমান শাহ কে ?

সালমান শাহ বাংলাদেশ 

সালমানশাহ

 

salman-shah




সালমানশাহ  ছিলেনএকজন বাংলাদেশী অভিনেতা মডেল। তারপ্রকৃত নাম শাহরিয়ার চৌধুরী ইমন। টেলিভিশন নাটক দিয়ে তার অভিনয় জীবন শুরু হলেও ১৯৯০-এর দশকে তিনিচলচ্চিত্রে অন্যতম জননন্দিত শিল্পী হয়ে উঠেন।


১৯৯৩ সালে তার অভিনীত প্রথম চলচ্চিত্র সোহানুর রহমান সোহান পরিচালিত কেয়ামত থেকে কেয়ামত মুক্তি পায়। একই ছবিতে নায়িকা মৌসুমী গায়ক আগুনেরঅভিষেক হয়। 


জনপ্রিয় এই নায়ক নব্বইয়েরদশকের বাংলাদেশে সাড়া জাগানো অনেক চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। 


তিনি সর্বমোট ২৭টি চলচ্চিত্র অভিনয় করেন এবং সবকয়টিই ছিল ব্যবসাসফল। তিনি ১৯৯৬ সালের সেপ্টেম্বর অকালেরহস্যজনক ভাবে মৃত্যুবরণ করেন।

 

 

প্রাথমিকজীবন

জন্ম

সালমানশাহ ১৯৭১ সালে ১৯ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশেরসিলেট শহরে দাড়িয়া পাড়াস্থ তার নানা বাড়ি আব হায়াতভবনে যা এখন সালমানশাহ্ভবন হিসেবে পরিচিত। তার পিতা কমর উদ্দিন চৌধুরী মাতা নীলাচৌধুরী। 


তিনি পরিবারের বড় ছেলে। যদিও তার জন্মনাম শাহরিয়ার চৌধুরী ইমন, কিন্তু চলচ্চিত্র জীবনে তিনি সবার কাছে সালমান শাহ বলেই পরিচিত ছিলেন।

 

শিক্ষা

সালমানপড়াশুনা করেন খুলনার বয়রা মডেল হাইস্কুলে। একই স্কুলে চিত্রনায়িকা মৌসুমী তার সহপাঠী ছিলেন। ১৯৮৭ সালে তিনি ঢাকার ধানমন্ডি আরব মিশন স্কুল থেকে ম্যাট্রিক পাস করেন। 


পরে আদমজী ক্যান্টনমেন্ট কলেজ থেকে ইন্টারমিডিয়েট ধানমন্ডির মালেকাসায়েন্স কলেজ (বর্তমান ডক্টর মালিকা বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ) থেকে বি.কম. পাসকরেন।

 

পারিবারিকজীবন

সালমানশাহ ১২ আগস্ট ১৯৯২তার খালার বান্ধবীর মেয়ে সামিরা হককে বিয়ে করেন। সামিরা হক ছিলেন একজনবিউটি পার্লার ব্যবসায়ী। তিনি সালমানের ২টি চলচ্চিত্রে তার পোশাক পরিকল্পনাকারী হিসেবে কাজ করেন।

 

অভিনয়জীবন

নাটকেঅভিনয়

সালমান১৯৮৫ সালে বিটিভির আকাশ ছোঁয়া নাটক দিয়ে অভিনয়ের যাত্রা শুরু করেন। পরে দেয়াল (১৯৮৫), সব পাখি ঘরেফিরে (১৯৮৫), সৈকতে সারস (১৯৮৮), নয়ন (১৯৯৫), স্বপ্নের পৃথিবী (১৯৯৬) নাটকে অভিনয় করেন। 


নয়ন নাটকটি সে বছর শ্রেষ্ঠএকক নাটক হিসেবে বাচসাস পুরস্কার লাভ করে। এছাড়া তিনি ১৯৯০ সালে মঈনুল আহসান সাবের রচিত উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত পাথর সময় ১৯৯৪ সালেইতিকথা ধারাবাহিক নাটকে অভিনয় করেন।

 

চলচ্চিত্রেঅভিষেক

প্রখ্যাতচলচ্চিত্র পরিচালক সোহানুর রহমান সোহানের হাত ধরে সালমান শাহ চলচ্চিত্রে অভিনয় করার সুযোগ পান। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান আনন্দ মেলা তিনটি হিন্দি ছবি 'সনম বেওয়াফা' 'দিল' 'কেয়ামত সেকেয়ামত তক' এর কপিরাইট নিয়েসোহানুর রহমান সোহানের কাছে আসে এর যে কোনএকটির বাংলা পুনঃনির্মাণ করার জন্য কিন্তু তিনি উক্ত ছবিগুলোর জন্য উপযুক্ত নায়ক-নায়িকা খুঁজে না পেয়ে সম্পূর্ণনতুন মুখ দিয়ে ছবি নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেন।


নায়িকা হিসেবে মৌসুমীকে নির্বাচিত করলেও নায়ক খুঁজে পাচ্ছিলেন না। তখন নায়ক আলমগীরের সাবেক স্ত্রী খোশনুর আলমগীর 'ইমন' নামে একটি ছেলের সন্ধান দেন। প্রথম দেখাতেই তাকে পছন্দ করে ফেলেন পরিচালক এবং সনম বেওয়াফা ছবির জন্য প্রস্তাব দেন, কিন্তু যখন ইমন 'কেয়ামত সে কেয়ামত তক' ছবির কথা জানতে পারেন তখন তিনি উক্ত ছবিতে অভিনেয়র জন্য পীড়াপীড়ি করেন। 


তার কাছে কেয়ামত সে কেয়ামত তকছবি এতই প্রিয় ছিলো যে তিনি মোট২৬ বার ছবিটি দেখেছেন বলে পরিচালক কে জানান। শেষপর্যন্ত পরিচালক সোহানুর রহমান সোহান তাকে নিয়ে কেয়ামত থেকে কেয়ামত চলচ্চিত্রটি নির্মাণের সিদ্ধান্ত নেন এবং ইমন নাম পরিবর্তন করে সালমান শাহ রাখা হয়। 


পরে মৌসুমীর বিপরীতে তিনি আরও তিনটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করেন। ছবি তিনটি হল অন্তরে অন্তরে(১৯৯৪), স্নেহ (১৯৯৪) দেনমোহর (১৯৯৫) শিবলী সাদিকপরিচালিত অন্তরে অন্তরে হিন্দি চলচ্চিত্র আও পেয়ার করেরআনঅফিসিয়াল রিমেক, স্নেহ পরিচালনা করেছেন গাজী মাজহারুল আনোয়ার শফি বিক্রমপুরীপরিচালিত দেনমোহর হিন্দি চলচ্চিত্র সনম বেওয়াফার অফিসিয়াল রিমেক।

 

চলচ্চিত্রেসাফল্য

তারদ্বিতীয় চলচ্চিত্র জহিরুল হক তমিজউদ্দিনরিজভী পরিচালিত তুমি আমার চলচ্চিত্রটি ব্যবসাসফল হয়। পরিচালক জহিরুল হক চলচ্চিত্রটির কিছুঅংশ নির্মাণ করার পর মারা যান।পরে তমিজউদ্দিন রিজভী বাকি কাজ শেষ করেন। 


এই চলচ্চিত্রে প্রথমবারেরমত তার বিপরীতে অভিনয় করেন শাবনূর। পরে তার সাথে জুটি বেধে একে একে সুজন সখি (১৯৯৪), বিক্ষোভ (১৯৯৪), স্বপ্নের ঠিকানা (১৯৯৪), মহামিলন (১৯৯৫), বিচার হবে (১৯৯৬), তোমাকে চাই (১৯৯৬), স্বপ্নের পৃথিবী (১৯৯৬), জীবন সংসার (১৯৯৬), চাওয়া থেকে পাওয়া (১৯৯৬)


প্রেম পিয়াসী (১৯৯৭), স্বপ্নের নায়ক (১৯৯৭), আনন্দ অশ্রু (১৯৯৭), বুকের ভিতর আগুন (১৯৯৭) সহ মোট ১৪টিছবিতে অভিনয় করেছেন। সবকটি ছবি ব্যবসাসফল হয়।

 

salman-shah-bangladesh


সালমানশাহ মৃত্যুর আগে মন মানে নাছবির ৫০% কাজ শেষ করতে পেরেছিলেন, তার মৃত্যুর পর চিত্রনায়ক রিয়াজকে দিয়ে ছবিটি করানো হয়। এছাড়াও কে অপরাধী, তুমিশুধু তুমি, প্রেমের বাজি সহ একাধিক মুভিসালমান শাহ অর্ধেক শুটিং করে মারা যান। 


পরবর্তীতে প্রেমের বাজি ব্যতীত বাকি সিনেমাগুলি অন্য নায়কদের দিয়ে নতুন করে শুটিং করা হয়। সালমানের অসমাপ্ত সিনেমার মধ্যে একমাত্র প্রেমের বাজি সিনেমার কাজ পরে আর শেষ হয়নি।

 



চলচ্চিত্রেরতালিকা

বছর       চলচ্চিত্র               চরিত্র     পরিচালক           টীকা

১৯৯৩   কেয়ামতথেকে কেয়ামত             রাজ       সোহানুররহমান সোহান               চলচ্চিত্রেঅভিষেক

১৯৯৪   তুমিআমার        আকাশ জহিরুলহক তমিজ উদ্দিনরিজভী     

অন্তরেঅন্তরে   শান        শিবলীসাদিক   

সুজনসখি           সুজন    শাহআলম কিরণ            

বিক্ষোভ               অনিক  মহম্মদহান্নান

স্নেহ       ইমন      গাজীমাজহারুল আনোয়ার        

প্রেমযুদ্ধ              রাজা      জীবনরহমান   

১৯৯৫   দেনমোহর          সরোয়ার              শফিবিক্রমপুরী               

কন্যাদান             শ্রাবন    দেলোয়ারজাহান ঝন্টু 

স্বপ্নেরঠিকানা    সুমন     এম. . খালেক 

আঞ্জুমান        সালমান               হাফিজউদ্দিন   

মহামিলন            শান্ত       দিলীপসোম      

আশাভালবাসা  আকাশ তমিজউদ্দিন রিজভী    

১৯৯৬   বিচারহবে           সুজন    শাহআলম কিরণ            

এইঘর এই সংসার           মিন্টু     মালেকআফসারী           

প্রিয়জন               নয়ন/ জীবন      রানানাসের        

তোমাকেচাই     সাগর    মতিনরহমান   

স্বপ্নেরপৃথিবী      মাসুম    বাদলখন্দকার  


সত্যেরমৃত্যু নাই               জয়        ছটকুআহমেদ  মৃত্যুরপর মুক্তিপ্রাপ্ত /১৩ সেপ্টেম্বর, ১৯৯৬

জীবনসংসার     সবুজ     জাকিরহোসেন রাজু       মৃত্যুরপর মুক্তিপ্রাপ্ত / ১৮ অক্টোবর, ১৯৯৬

মায়েরঅধিকার                রবিন     শিবলীসাদিক    মৃত্যুরপর মুক্তিপ্রাপ্ত / ডিসেম্বর, ১৯৯৬

চাওয়াথেকে পাওয়া        সাগর    এমএম সরকার                মৃত্যুরপর মুক্তিপ্রাপ্ত / ২০ ডিসেম্বর, ১৯৯৬

১৯৯৭   প্রেমপিয়াসী      হৃদয়/জীবন চৌধুরী        রেজাহাসমত    মৃত্যুরপর মুক্তিপ্রাপ্ত / ১৮ এপ্রিল, ১৯৯৭

স্বপ্নেরনায়ক      রাজু       নাসিরখান          মৃত্যুরপর মুক্তিপ্রাপ্ত / জুলাই, ১৯৯৭

শুধুতুমি              আকাশ কাজীমোরশেদ                মৃত্যুরপর মুক্তিপ্রাপ্ত / ১৮ জুলাই, ১৯৯৭

আনন্দঅশ্রু      খসরু     শিবলীসাদিক    মৃত্যুরপর মুক্তিপ্রাপ্ত / আগস্ট, ১৯৯৭

বুকেরভিতর আগুন       আগুন  ছটকুআহমেদ  মৃত্যুরপর মুক্তিপ্রাপ্ত শেষ ছবি / সেপ্টেম্বর, ১৯৯৭

টিভিনাটক

 

সিলেটেসালমান শাহ্‌-এর কবরের এপিটাফ।

বছর       নাটক    চরিত্র

১৯৮৫   আকাশছোঁয়া   

১৯৮৮   সৈকতেসারস   রাব্বি

১৯৯০   পাথরসময়        

১৯৯৪   ইতিকথা  ইউসুফ

১৯৯৪   দোয়েল               

১৯৯৫   সবপাখি ঘরে ফেরে       

১৯৯৫   নয়ন      সুলতান

১৯৯৬   স্বপ্নেরপৃথিবী      শুভ



মৃত্যু

সালমানশাহ ১৯৯৬ সালের সেপ্টেম্বর মারাযান। ঢাকার ইস্কাটনে তার নিজ বাস ভবনে সিলিং ফ্যানের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় তার দেহ উদ্ধার করা হয়। ময়না তদন্ত প্রতিবেদনে আত্মহত্যা বলে উল্লেখ করা হলেও তার মৃত্যু নিয়ে রহস্য থেকে যায়। 


অনেকেই সালমান শাহর মৃত্যুর জন্য তার স্ত্রী সামিরার দিকে অভিযোগের আঙুল তোলেন, এমনকি পরবর্তীকালে সালমানের পরিবারের পক্ষ থেকে স্ত্রী সামিরা আরো কয়েকজনকেআসামি করে মামলা দায়ের করা হয় কিন্তু পরে এই মামলার আরকোন অগ্রগতি হয়নি ফলে সালমানের মৃত্যু নিয়ে রহস্য আর উদঘাটিত হয়নি।


২০২০ সালের ২৪ ফেব্রুয়ারি পুলিশেরতদন্ত বিভাগ জানায় যে সালমান শাহআত্মহত্যাই করেছিলেন।


আরও পড়ুনঃ 

গুগল ব্লোগ্গিং করে মাসিক আয় করুন ৫০,০০০ টাকা ! সম্পূর্ণ বিস্তারিত

লকডাউনের সময় 150 উপায়ে ঘরে বসে অর্থ উপার্জন করুন

কোয়ারানটিনে হোটেলেসেক্স! যৌনকেচ্ছাই ছড়াল করোনা...

'বিকাশ ভুল ছিল,দেশের আবর্জনা সাফ হলো ! ভালোই হলো

লকডাউনে যারা বেকার হয়েচেন তাদের জন্যে ৫০ হাজার চাকরিl আজকেই এপ্লাই করুন ! ফোন এবং ঠিকানা বিস্তারিত জানুন l

সুখবর, সহস্রাধীক সরকারি চাকরী শীঘ্রই এপলাই করুন।

আসতেসে ঘূর্ণি বাতাস 'আমফান'পশ্চিম বঙ্গ এবং আসামের কোন জিলায় জারি হয়েছে সতর্কবাণী?

নগদ অর্থ উপার্জন করতে চান?? 60 টি উপায়


আরও পড়ুনঃ

A crorepati who lives in a hut!

 

Best Places to Visit in the USA

 

RSS Man involved in Babri Masjid demolition now builds mosques to wash away guilt

 

No Time to Die Full Movie Download

 

Download Full Movie No Time to Die

 

Tiger 3 Full Movie

 

Best Motivational Quotes

 

Kangana Ranaut

 

FAUG Game Download

 

70 lakh youth lost jobs, 50 thousand committed suicide. News channel only sees Sushant, Kangana and Riya

 

Was Narendra Modi really a tea seller? What is the evidence?

 

Rhea Chakroborty-Sushant Singh Rajput

 

Sunney Leone Biography

Comments

Popular posts from this blog

The Great Khali Bangla Biography দ্য গ্রেট খালি বাংলা জীবনী

The Great Khali Bangla Biography  দ্য   গ্রেট   খালি   বাংলা    জীবনী   একজন দিনমজুর করা ছেলে কিভাবে পুরোবিশ্বে  দ্য   গ্রেট   খালি নাম খ্যাতি  করলেন  হিমাচল প্রদেশের সিরমৌর জেলায় দলীপ সিং রানা নামের এক যুবক প্রায় নিজের ঘরে খাবার নিয়ে জগড়া করতো।  আর কেনই বা জগড়া করতোনা কারণ দিন দিন তার শরীরের যে আকার বৃদ্ধি হচ্ছিল, পরিবারে যে খাবার তাকে দেওয়া হতো সেই খাবার দিয়ে কখনো তার ক্ষুদা মিটানো সম্ভব চিল  না।   সে একাই এতটুকু খেয়ে নিতো যে খাবার তার ৭ ভাই বোন মিলে খেতে পারতো।  দলীপ সিং এর বাবা পেশায় একজন দিনমজুর ছিলেন , তাই তিনি যথারিতি দলীপ সিঙ্গের খাবারের বেবস্তা করতে পারতেন না।   banglame.the-great-khali-biography একসময় কঠোর পরিশ্রম ও জীবনযাপনকারী   The Great Khali    আজ এত ধনী হয়ে উঠেছে যে তিনি নিজের গ্রামের উন্নয়নের জন্য অর্থ ব্যয় করেন। হ্যাঁ , কিশোরের দিনগুলিতে তাকে তার ভাই এবং বাবার সাথে কঠোর পরিশ্রম করতে হয়েছিল। যাতে তারা তাদের পেট   ভরে দুবেলা খেতে    পারে। কিন্তু একদিন তার ভাগ্য পালা নিল , তার জগত বদলে গেল।   The Great Khali    সাফল্যের গল্প কো

বাংলা প্রেরণামূলক ছোট গল্প

বাংলা প্রেরণামূলক ছোট গল্প আমাদের সবার   জীবনে সুখ দুঃখ কষ্ট , বেদনা থাকে , সিনেমার অর্ধনগ্ন নায়িকাদের   ছবি গুলোর জন্য ইন্টারনেট অনুসন্ধান করার পরিবর্তে বাংলা প্রেরণামূলক ছোট গল্প গুলো পড়ুন । যখন জীবন আপনাকে কোনো সমস্যায় ফেলেছে , তখন এই অনুপ্রেরণামূলক ছোট গল্প গুলিতে ফিরে আসুন।   সোবেরানো   ও   তার   মেয়ে ,  সহকারী   কমিশনার   জ্যোতি সেগুলি কেবল আত্মার জন্য একটি ইন্টারনেট আলিঙ্গন পাওয়ার মতো পড়ছে তা নয় , আপনার জন্য একটি ধারণা বা কোনও পরিবর্তনের জন্ম দিতে পারে। পড়ুন এবং ভালো লাগলে শেয়ার   করতে ভুলবেন না।   বাংলা জীবন সম্পর্কে সেরা প্রেরণামূলক ছোট গল্প   1. আসামের তিনসুকিয়া জেলায় ঘটে যাওয়া একটি বাস্তব জীবনের গল্প।   সোবেরানো নামে এক সবজি বিক্রেতা তার সবজির ঠেলা ঠেলে বাড়ি যাচ্ছিলেন   , হঠাৎ তিনি ঝোপঝাড়ের মধ্যে   কাঁদতে থাকা এক   বাচ্চার শব্দ শুনেছেন সোবেরানো ঝোপের কাছে গিয়ে দেখলেন একটি শিশু আবর্জনার স্তূপে শুয়ে কাঁদছে।   সোবেরানো চারপাশে তাকাচ্ছিল , কিছুক্ষণ

মিয়া খলিফা MIYA KHALIFA

MIYA KHALIFA মিয়া খলিফা   মিয়া খলিফার জীবনের অজানা অনেক তথ্য।    মিয়া খলিফার উপার্জন কত? আরও অনেক তথ্য।  mia-khalifa-bangla